কালোজিরা কি কি উপাদান আছে 1024x576 1

কালোজিরা কি কি উপাদান আছে? 100% Best and Genuine.

কালোজিরা কি কি উপাদান আছে? কালোজিরা আমরা বাঙ্গালিরা অনেক পসন্দ করে থাকি। তাই আমাদের মধ্যে কারো কারো মনে প্রশ্ন উঠতে পারে কালোজিরার মধ্যে কি কি উপাদান এবং কি কি কাজে ব্যবহার হয়।

তো আজকের এই লেখাটিতে আমরা বিস্তারিত ভাবে জানবো।

কালোজিরা কি কি উপাদান আছে?

১ গ্রাম কালোজিরায় পুষ্টি উপাদান থাকে ।

  • প্রোটিন ২০৮ MCG ।
  • ভিটামিন বি১ ১৫ MCG ।
  • নিয়াসিন ৫৭ MCG ।
  • ক্যালসিয়াম ১.৮৫ MCG ।
  • আয়রন ১০৫ MCG ।
  • ফসফরাস ৫.২৬ MCG ।
  • কপার ১৮ MCG ।
  • জিংক ৬০ MCG ।
  • ফোলাসিন ৬১০ IU ।

কালোজিরার উপকারিতা ও অপকারিতা ।

কালোজিরা কি কি উপাদান আছে

পৃথিবীর সব বস্তুতেই যেমন উপকারিতা আসে ঠিক তেমনি অপকারিতাও আসে। চলুন জেনে নেই ………

উপকারিতা

  • কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
  • ফাঙ্গাল সংক্রমণ কে বাধা দিতে সহায় করে।
  • মার্কেটে কালোজিরার তেল পাওয়া যায় যেটা চুল, তকের অনেক উপকারি।
  • ক্যান্সার থেকে পরিত্রাণ পেতে সাহায্য করে।

অপকারিতা বা কালোজিরা বেশি খেলে কি হয় ? বা প্রতিদিন কালোজিরা খেলে কি ক্ষতি হয় ?

  • ত্বকে খুজলি এবং শুকনা কাস হতে পারে।
  • পেটে সমস্যা হতে পারে।
  • বমি হতে পারে।
  • পায়খানা কোষা হতে পারে।

সকালে খালি পেটে কালোজিরা খেলে কি হয় ?

খালি পেটে সকালে কালো জিরা খেলে মস্তিষ্কের জন্য উপকারী। বয়স্ক মানুষের মস্তিষ্কের কার্যকর ক্ষমতা বাড়ায়।

কালোজিরা খেলে কি গ্যাস হয় ?

কালোজিরা কি কি উপাদান আছে
কালোজিরা কি কি উপাদান আছে?

এটি খেলে গ্যাস হওয়ার সম্ভাবনা একেবারেই কম, বরঞ্চ এটি খেলে গ্যাস কমে যাজা

কালো জিরার তেল চুলের যত্নে ।

লেবুর রস এবং কালোজিরার তেল একসঙ্গে করে মাথায় যেখানে চুল পরে বা কম আসে সেখানে লাগাতে পারেন। এটিতে আপনার চুল পরা বন্ধ হতে পারে এবং নতুন করে চুল গজাতে পারে।

পানের সাথে কালোজিরা খেলে কি হয় ?

অনেকেই জিজ্ঞাস করে পানের সাথে কালোজিরা খেলে কি হয়। আবার অনেকেই বোলে পানের সাথে কালোজিরা সেক্সের ক্ষমতা বাড়ে। কিন্তু এটার কোন প্রমাণ নেই।

কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম ।

১ গ্লাস পানির সাথে এক চিমটি পরিমাণ কালোজিরা নিয়ে সকালে খালি পেটে খেতে পারেন ।

DICLAIMER

এই ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তু শুধুমাত্র তথ্যগত উদ্দেশ্যে এবং পেশাদার চিকিৎসা পরামর্শ, রোগ নির্ণয় বা চিকিত্সার বিকল্প হওয়ার উদ্দেশ্যে নয়। চিকিৎসা সংক্রান্ত অবস্থার বিষয়ে আপনার যেকোন প্রশ্ন থাকলে অনুগ্রহ করে একজন চিকিত্সক বা অন্য যোগ্য স্বাস্থ্য প্রদানকারীর পরামর্শ নিন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *