Istockphoto 1211281586 170667a 1

খেজুরে কি ভিটামিন আছে? 100% Best and genuine.

খেজুরে কি ভিটামিন আছে? খেজুর মানুষের এক জনপ্রিয় খাদ্য যেটাকে মানুষের অনেক প্রশ্ন রয়েশে।

খেজুরে কি ভিটামিন আছে?

খেজুরে কি ভিটামিন থাকে ? নিচে দেওয়া হল=খেজুরে ৬ ধরনের ভিটামিন আছে ।

  • ভিটামিন C
  • থায়ামিন (ভিটামিন B1)
  • রিভফ্লাবিন (ভিটামিন B2)
  • নিয়াচিন (ভিটামিন B3)
  • ভিটামিন A

১০০ গ্রাম খেজুরে কি কি পুষ্টিকর খাদ্য থাকে।

  • কালরি = ৩১৪
  • প্রটিন = ৫.১ গ্রাম
  • ফ্যাট = ০.৪ গ্রাম
  • ছডিয়াম = ২গ্রাম
  • পটাচিয়াম = ৬৫৬ মিলিগ্রাম
  • কার্বোহাইড্রেট = ৭৫ মিলিগ্রাম

খেজুর খেলে কি কি উপকার পাওয়া যায় ?

  • ক্যান্সার রোগীর জন্য অনেক উপকারি।
  • মস্তিষ্কর কর্ম ক্ষমতা বাড়ায়।
  • কিডনির রোগীর জন্যেও অনেক উপকারি।
  • লিঙ্গে রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় ফলে লিঙ্গ দাঁড়ানোর সমস্যাও থাকে না।
  • শুক্রাণুর ঘনত্ব বাড়ায়।
  • হাড্ডির জন্য অনেক ভালো।
  • চুল পরা বন্ধ করে।

আজকাল আমরা বাজারে অনেক নকল খেজুর পাওয়া যায়। আমি অনেক গবেষণা করে আপনাদের জন্য ভালো খেজুরের লিঙ্ক নিছে শেয়ার করলাম।

খেজুর কত প্রকার ও কি কি ?

অনেক ধরনের খেজুর বাজারে পাওয়া যায়। তার ভিতরে জনপ্রিয় কয়েক টা আপনাদের সাঁতে শেয়ার করলাম।

  • আজুয়া
  • মেজদুল
  • সাগি
  • সাফাওয়ি
  • মুসকানি

খেজুর খাওয়ার নিয়ম ।

খেজুরে কি ভিটামিন আছে 1
  • সকালে খালি পেটে খেলে আর রাত্রে ঘুমানুর আগে খেতে পারেন।কিন্তু মনে রাকতে হবে যদি কারো পেট খারাপ থাকে তাহলে না খেলেই ভালো।

শুকনো খেজুর খাওয়ার নিয়ম।

সারারাত ভিজিয়ে রেখে সকালে খেতে পারেন তাতে অনেক উপকার হবে।

আজওয়া খেজুর খাওয়ার নিয়ম

এই খেজুর যদি ব্যায়াম করার আধা ঘণ্টা আগে খেতে পারেন তাহলে অনেক উপকারি হবে।

খুরমা খেজুর খাওয়ার নিয়ম

এই খেজুর টা হজম হইতে অনেক সময় লাগে । তার জন্য সকালে খেলে অনেক অনেক উপকার হয়।

খেজুর খাওয়ার অপকারিতা।

কিন্তু উপকারী ফল অনেক সময় ক্ষতিও নিয়ে আসতে পারে। তাই কিছু কিছু ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করা দরকার।

যদি কারো ডায়বেটিক থাকে তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে খেজুর খেতে পারেন।

শরীরে যদি পটাশিয়ামের পরিমান বেশি থাকে সেই ক্ষেত্রে খেজুর খাওয়া থেকে বিরত থাকাই ভালো।

DICLAIMER

এই ওয়েবসাইটের বিষয়বস্তু শুধুমাত্র তথ্যগত উদ্দেশ্যে এবং পেশাদার চিকিৎসা পরামর্শ, রোগ নির্ণয় বা চিকিত্সার বিকল্প হওয়ার উদ্দেশ্যে নয়। চিকিৎসা সংক্রান্ত অবস্থার বিষয়ে আপনার যেকোন প্রশ্ন থাকলে অনুগ্রহ করে একজন চিকিত্সক বা অন্য যোগ্য স্বাস্থ্য প্রদানকারীর পরামর্শ নিন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *